ঈদের বাড়ি ফেরার বিমানের টিকেটেই লাশ হয়ে ফিরলেন কাপাসিয়ার হাবিবুর

কাপাসিয়া (গাজীপুর) থেকে অধ্যাপক শামসুল হুদা লিটন: বিমানের টিকেট কিনেছিলেন আগামী ঈদুল আযহায় বাড়ি ফিরবেন। বাড়ি এসে ছেলে-মেয়ের জন্যে কেনা-কাটা করবেন।নিজের পছন্দ মত কুরবানির পশু কিনবেন। দীর্ঘদিন পর বাবা  ঈদে বাড়ি আসবেন। আনন্দে প্রহর গুনে ছেলে-মেয়ে, স্ত্রী, বিধবা মা। কিন্তু ভাগ্যের কি নির্মম পরিহাস ঈদের আগেই বাড়ি ফিরার জন্যে  কেনা সেই বিমানের টিকেট দিয়েই লাশ হয়ে বাড়ি ফিরলেন হাবিবুর(৪০)।

হাবিুর  বাহরাইন প্রবাসী। কাপাসিয়ার দূর্গাপুর ইউনিয়নের ঘাটকুড়ি গ্রামের  মৃত মোহামম্মদ আলীর পুত্র। ২ ছেলে ১ মেয়ের বাবা হাবিবুর । ৯ আগস্ট বৃহস্পতিবার সকালে তার লাশ গ্রামের বাড়ি নিয়ে আসা হলে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারনা হয়। এ সময় পরিবার ও গ্রামের মানুষ কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

হাবিবুরের পরিবার সূত্রে জানা যায়, সর্বশেষ গত ৩ আগস্ট কাপাসিয়ার ঘাটকুড়ি গ্রামে থাকা একমাত্র মেয়ের সাথে বাহরাইন থেকে মোবাইলে ভিডিও কলে কথা বলেছিলেন হাবিবুর। তার ছোট অবুঝ মেয়ে শিশুটি বউ সেজে বাবাকে দেখিয়ে বলেছিল,“বাবা আমাকে দেখতে কেমন লাগে? বাবা বলেছিলেন মামনি  তোমাকে দেখতে দারুন লাগছে। বাড়ি ফিরে তোমাকে লাল টুকটুকে একটি শাড়ি কিনে দিব।  মেয়ের সাথে কথা শেষ হতেনা হতেই হাবিবু বুকে ব্যাথা অনুভব করেন। কিছুক্ষণ পরেই হাবিবুর স্ট্রোক করে মৃত্যুবরন করেন।

বাড়িতে হাবিবুরের মৃত্যুর খবর আসলে  হঠাৎ আনন্দের মাঝে বিষাদের ছায়া নেমে আসে। শোকে ডেকে যায় পুরো বাড়ি,ঘাটকুড়ি গ্রাম। বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় জানাযা শেষে হাবিবুরকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। আর কয়েকদিন পর ঈদ আসবে সবার ঘরে ঘরে । হাবিবুরের ছেলে-মেয়েরা হয়তো ঈদের দিনে তাদের বাবাকে খুঁজবে । বাবার কথার স্মৃতি নিয়ে তারা বেঁচে থাববেন।