কাতারে বিশ্বকাপ আয়োজনে অবরোধের প্রভাব পড়বে না

চ্যানেল ডেস্ক : সৌদি জোটের অবরোধের কারণে ২০২২ সালে বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনে কাতার কোনো রকম ঝুঁকিতে পড়বে না। কাতার বিশ্বকাপ প্রস্তুতির ভারপ্রাপ্ত ব্যক্তি এ কথা জানিয়েছেন।

চলতি বছরের ৫ জুন দোহার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে আকাশসীমা, স্থলবন্দর এবং সমুদ্রবন্দর বন্ধ করে দেয় বাহরাইন, মিসর, সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। ইরানের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখা এবং মুসলিম ব্রাদারহুড, আল কায়েদা, ইসলামিক স্টেট (আইএস) সহ অন্যান্য জঙ্গি সংগঠনগুলোকে সমর্থন, অর্থায়ন ও লালন পালনের অভিযোগে দোহার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে অবরোধ আরোপ করে সৌদি জোট।

ফলে ২০২২ সালে বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজক দেশ কাতারকে আটটি ভেন্যু প্রস্তুত করতে প্রয়োজনীয় কাঁচামালের জন্য অন্য দেশের দিকে হাত বাড়াতে হয়।

কাতার বিশ্বকাপ আয়োজনের সর্বোচ্চ কমিটির মহাসচিব হাসান আল-থাওয়াদি দ্য অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস নিউজ অ্যাজেন্সিকে শুক্রবার জানান, বেশ কয়েক বছর ধরে আমরা সমালোচনা আর আক্রমণের শিকার; কিন্তু সবসময় আমরা সমালোচনার সামনাসামনি হয়েছি।

তিনি আরও জানান, সামান্য বাড়তি খরচে প্রয়োজনীয় উপাদান আমদানি এবং ভেন্যু নির্মাণের কাজ চলছে। আমাদের প্রকল্প নির্ধারিত শিডিউল অনুযায়ীই চলছে। বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনে এটা (সৌদি জোটের অবরোধ) কোনো প্রভাব ফেলবে না।

অবশ্য অবরোধের পর থেকেই জঙ্গি গোষ্ঠীদের সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগ নাকচ করে দিয়ে আসছে দোহা। সৌদি জোট অবরোধ আরোপের পরই বিশ্বকাপ আয়োজক দেশ কাতার ফিফার কাছে তাদের ‘প্ল্যান বি’ তুলে ধরে।

qater

এ ব্যাপারে থাওয়াদি জানান, প্রত্যেক প্রকল্পেরই প্ল্যান বি থাকে। আমরাও এই প্রকল্পে প্ল্যান বি অনুযায়ী কাজ শুরু করেছি। সেকারণে ফিফা অার অন্য কোনো দেশে বিশ্বকাপ ফুটবল ২০২২ আয়োজনের চিন্তা করেনি।

তিনি আরও জানান, অবরোধ আরোপের পরই আমরা ঠিকাদারদের ডেকে পাঠাই। তাদেরকে ভিন্ন পথে কাঁচামাল সংগ্রহের জন্য বলা হয়। ফলে আমাদের লোকেরা ভিন্ন পথে ভিন্ন সরবরাহকারীর কাছ থেকে কাঁচামাল নিয়ে এসেছে। আমি ভীষণ খুশি যে, প্রকল্প সময় অনুযায়ীই এগিয়ে যাচ্ছে। অবরোধের কারণে আমাদের প্রকল্পে কোনো ধরনের প্রভাব পড়েনি।

২০২২ কাতার বিশ্বকাপ ফুটবলই হবে মধ্যপ্রাচ্যে অনুষ্ঠিত প্রথম বিশ্বকাপ। পৃথিবীর বেশিরভাগ মানুষ প্রাচ্যকে অবজ্ঞা করে, এখানকার মানুষদের পিছিয়ে পড়া হিসেবেই ধরে নেয়; বিশ্বকে দেখিয়ে দেয়ার এটা সুবর্ণ সুযোগ। সবাইকে যথাসম্ভব ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ ফুটবল সফল করার জন্য আহ্বানও জানান থাওয়াদি।