কাপাসিয়ায় ইউনুছ কী গাছের ছাল খেয়ে বাঁচে?

মোঃ রুহুল আমীন বিএসসি: উলঙ্গ প্রায় একজন মানুষকে গাছে বেধে রাখার চেষ্টা করছেন কয়েকজন যুবক। মাঝে মধ্যে মাথা উঠিয়ে নাইলনের দড়ি ছেড়ার চেষ্টা করছে। কামড়িয়ে গাছের ছাল খেয়ে ফেলছে সে। দেখতে দেখতে উৎসুক জনতার ভীড় জমে গেছে সেখানে।

জমায়েত হওয়া লোকজন বলাবলি করছিল, লোকটি  চলন্ত সিএনজি থামিয়ে ড্রাইভারকে মারধর করে। সিএনজি উল্টিয়ে দেওয়ার চেষ্টাও করে সে। এভাবে  ৪-৫টি সিএনজির উপর সে তান্ডব চালায় । অবস্থা বেগতিক দেখে এলাকাবাসি তাকে বেধে রাখে। উপস্থিত লোকজনের প্রশ্ন, সে কী গাছের ছাল খেয়ে বাঁচে?

গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া উপজেলার রায়েদ ইউনিয়নের হাইলজোর গ্রামে এমনই অদ্ভুত  দৃশ্য ধরা পড়ে  বিজ্ঞাপন চ্যানেলের ক্যামেরায়। হাইলজোর কলেজ গেট মোতালিব মেম্বারের বাড়ির পশ্চিম পাশে আমরাইদ -দরদরিয়া রাস্তার পাশে একটি আম গাছে বেঁধে রাখা হয় তাকে। তখন ২ এপ্রিল সকাল ১১টা।

স্থানীয় খোরশদ আলম গতকাল রাত ৮টায় বিজ্ঞাপন চ্যানেলকে জানান, লোকটির নাম ইউনুছ। বয়স আনুমানিক ৩৫ থেকে ৩৭। বাড়ি বরহর গ্রামে। সে সাধন মেম্বারের চাচাত ভাই। বিকাল বেলায় তার চাচা সুজন তাকে উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে যায়।

“ইউনুছ একজন পাগল” বলছিলেন খোরশদ আলম। অন্য এক বাসিন্দা কাদের বলছিলেন,“ ইউনুছ নেশাগ্রস্থ। প্রায়ই সে জানমালের ক্ষতি করে।” আসলেই সে গাছের ছাল খেয়ে বাঁচে কিনা সেই প্রশ্নোত্তর রয়ে গেল অধরা।