কাপাসিয়ায় মাদকের স্বর্গ রাজ্য, প্রশাসনের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ

কাপাসিয়া (গাজীপুর) প্রতিনিধি :
গাজীপুরের কাপাসিয়া সদর সহ বিভিন্ন এলাকা মাদকের স্বর্গ রাজ্যে পরিনত হয়েছে। হাত বাড়ালেই মাদক পাওয়া যাচ্ছে উপজেলা সর্বত্র। এলাকার অলি গলিতে মাদক ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট গড়ে তুলে অবাধে বিক্রি করছে মাদক। এ যেন দেখার কেউ নেই। এতে সব চেয়ে বেশী নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়ছে স্কুল কলেজের ছাত্ররা। এদের বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করলে নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। ফলে মাদকের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার সাহস পাচ্ছেন না কেউ।

সুত্র জানায়, উপজেলার কাপাসিয়া বাজারে, কলেজ রোড বাঁশতলা মোড়ে ,রাওনাট বাজারে, রানীগঞ্জ,তারাগঞ্জ, তরগাঁও খেয়া ঘাট মোড়ে, ফকির মজনু শাহ সেতুতে, আমরাইদ, নরসিংপুর, রায়েদ সহ উপজেলার প্রায় ৫০টি স্পটে প্রকাশ্যে মাদক বেচা কেনা হচ্ছে। সন্ধ্যা বা দিনের বেলায় প্রকাশ্যে চলে এসব স্পটে মাদক বিক্রি।হোন্ডা বা সাইকেলে করে ক্রেতারা এসে নিয়ে যাচ্ছে । এসব স্পট থেকে নিয়মিত পুলিশ মাসোহারা নিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠছে।

সম্প্রতি কাপাসিয়া উপজেলার খোদাদিয়া গ্রামের গামছা ব্যবসায়ী আলমগীরের ছেলে মোঃ রাকিব (১৮) মাদকাসক্ত হয়ে এক পথচারিকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এর কিছুদিন পর মাদক বিক্রি ও সেবনের প্রতিবাদ করায়  মোঃ জাহিদুল নামক এক ছাত্রকে কাপাসিয়ার কলেজ রোডের বাঁশতলা চৌরাস্তা মনিহারী দোকানের সামনে সন্ধ্যায় লোকজনের উপস্থিতিতে তাকে বেধড়ক মারধোর করে।পরে তাকে আহত অবস্থায় কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ব্যাপারে জাহিদুলের বাবা মো: বদর উদ্দিন বাদী হয়ে এলাকার মাদক ব্যবসায়ীদের নামে একটি এজাহার দায়ের করেন।

প্রতিদিনই বাঁশতলা মোড়ে এলাকায় মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীদের আনাগোনা দেখা যায়। কিন্তু প্রশাসনিকভাবে মাদক ব্যবসায়ীদের দমনের কোন উদ্যোগ লক্ষ্য করা যাচ্ছে না।

মাদকাসক্তির প্রভাবে যুবশ্রেণির নৈতিক অধঃপতন ঘটেছে। নেশাগ্রস্থদের মধ্যে অপরাধ প্রবণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। মাদকাসক্ত ব্যক্তি নেশার খরচ যোগানোর জন্য নানা রকম সমাজবিরোধী কাজে লিপ্ত হয়ে পড়েছে। মাদকের ছোবলে ধ্বংসের পথে যুবসমাজ। উঠতি বয়সের ছেলে মেয়েরা নেশায় আসক্ত হচ্ছে, অশ্লীলতার ছোবলে হারাচ্ছে নৈতিক চরিত্র।

মো: নজরুল ইসলাম নামে স্থানীয় বাসিন্দা জানান, মাদকাসক্তদের উৎপাতে এলাকায় আমাদের বসবাস করাই দায় হয়ে পড়েছে। এদের বিরুদ্ধে প্রশাসন কোনো ব্যবস্থা গ্রহন করছেনা বলে তিনি অভিযোগ করেন।

এ ব্যাপারে কাপাসিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাখাওয়াত হোসেন বিজ্ঞাপন চ্যানেলকে বলেন, আমরা পরিষদ মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করেছি। আমার এলাকা মাদকমুক্ত করার জন্য অভিভাবকদের নিয়ে সচেতনতামূলক সভা এবং মাদকের কুফল বিষয়ে লোকজনকে অবহিত করা হচ্ছে।

জানতে চাইলে কাপাসিয়া থানার ওসি মোহাম্মদ আবু বকর সিদ্দিক বলেন, আমরা কয়েক দফা মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়েছি । আমরা আরো অভিযান চালাব। কাপাসিয়াকে মাদকমুক্ত এলাকা ঘোষনা করা হবে।