কাপাসিয়ায় যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু, প্রেমিকা সহ আটক ৩

প্রবাসীর ঘরে স্ত্রীর ধর্ম ভাইয়ের ঝুলন্ত লাশ

কাপাসিয়া (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ পরকীয়া প্রেমের জের ধরে গাজীপুরের কাপাসিয়ায় লাশ হলেন এক যুবক! ১৮ জুলাই দুপুরে উপজেলার ঘাগটিয়া ইউনিয়নের বাওরাইদ গ্রামের সৌদি প্রবাসী সাজেদুল ইসলামের বাড়ি থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

কাপাসিয়া থানা পুলিশ জানান, নিহত যুবকের নাম বাশার। উপজেলার চেংনা গ্রামের মৃত তাজউদ্দীন আকন ওরফে তাজু কবিরাজের বড় ছেলে তিনি। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পরকীয়া প্রেমিকা সহ ৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

নিহত বাশারের খালা শরিফা বেগম জানান, নিহত আবুল বাশার সৌদি প্রবাসী সাজেদুল ইসলামের স্ত্রী’র সাথে ধর্ম বোন পরিচয়ে দীর্ঘ দিন যাবত তার পরিবারে যাতায়াত ছিল।  সাজেদুল দীর্ঘ এগারো বছর পর গত শুক্রবার সৌদি আরব থেকে বাড়িতে আসে। সোমবার বিকালে প্রবাসী সাজেদুল ইসলাম তার স্ত্রী ডলির ধর্ম ভাই কাপড় ব্যবসায়ী আবুল বাশার’কে ফোন করে তার বাড়িতে আসতে বলেন। বাশার রাতে তাদের বাড়িতে যায় এবং পরিবারের সাথে রাতের খাবার খেয়ে ওই বাড়িতেই ছেলে লিংকন এর সাথে পাশের ঘরে ঘুমাতে যায়। মঙ্গলবার ভোরে লিংকনের মা পাশের কক্ষে বাশারকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে প্রতিবেশিদের জানায়।

শরিফা আরও জানান, নিহত বাশারের সাথে সাজেদুলের স্ত্রী ডলি’র গোপন সম্পর্ক ছিল। এ বিষয়টি এলাকায় ব্যাপক প্রচার আছে। ডলি তার ধর্ম ভাই আবুল বাশারের নিকট থেকে ৫ লাখ টাকা নিয়ে তার ছেলে রিমনকে সিঙ্গাপুর পাঠিয়েছে। এলাকাবাসির ধারনা, প্রবাসি সাজেদুল তার স্ত্রীর সাথে বাশারের অবৈধ সম্পর্কের ঘটনাটি সহ্য করতে না পেরে এবং ৫ লাখ টাকা হজম করতেই আবুল বাশারকে ফাঁস দিয়ে মৃত্যুর ঘটনাটি সাজানো হয়েছে।

নিহত বাশারের ভাই হাবিবুর রহমান বলেন, বাশারের মৃত্যুর ঘটনাটি সাজানো ও  রহস্যজনক। এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

কাপাসিয়া থানার পি এস আই জাকির হোসেন বিজ্ঞাপন চ্যানেলকে বলেন, ইলেক্ট্রিক মাল্টিফ্লাগের তাঁর পেঁচিয়ে ঘরের ছাতিসের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় ১৮ জুলাই মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে আবুল বাশারের লাশ উদ্ধার করা হয়। গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি পাঠানো হয়েছে।

থানার ডিউটি অফিসার এ এস আই কুতুব উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রবাসী সাজেদুল ইসলাম, তাঁর স্ত্রী ডলি বেগম ও ছেলে লিংকনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। নিহত বাশারের একটি শিশু সন্তান রয়েছে।