কাপাসিয়া বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষকে লিগ্যাল নোটিশ দিচ্ছে বিশ্ব মানবাধিকার সংস্থা

স্টাফ রিপোর্টার: গাজীপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কাপাসিয়া জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) সেলিনা আক্তার সহ দায়ী কর্মকর্তাদেরকে  লিগ্যাল নোটিশ দিতে যাচ্ছে বিশ্ব মানবাধিকার সংস্থা ওয়ার্ল্ড হিউম্যান রাইটস ডিপার্টমেন্ট।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরের ভিত্তিতে স্বপ্রণোদিতভাবে কাপাসিয়া উপজেলা বাসিন্দাদের পক্ষে এ নোটিশ প্রেরণের সিদ্ধান্ত নেয় আন্তর্জাতিক এই সংগঠনটি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ওয়ার্ল্ড হিউম্যান রাইটস ডিপার্টমেন্টের চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম মোল্লা এই প্রতিবেদককে জানান, “গাজীপুর জেলার অন্যান্য উপজেলা সহ সারা দেশে নাগরিকরা রীতিমতো বিদ্যুৎ সুবিধা ভোগ করছেন। কিন্তু কাপাসিয়া উপজেলার বাসিন্দারা এ পর্যায়ে নেই। এতে সুস্পষ্ট, কাপাসিয়া উপজেলায় জন্ম নেয়ার কারণেে সেখানে বসবাসরত নাগরিকরা বৈষম্যের শিকার। যা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের ১৬, ১৯, ২১(২) ও ২৮(১) অনুচ্ছেদের গুরুতর লঙ্ঘন।”

তিনি আরও বলেন, “কাপাসিয়ার মানুষের বিদ্যুৎ নিয়ে যারা ছিনিমিনি খেলছেন, তাদেরকে আইনের আওতায় এনে আদালতে দাঁড় করানো যেতে পারে। অবিলম্বে বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে না পারলে কাপাসিয়া পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএম সেলিনা আক্তার ও অন্যান্য দায়ী কর্মকর্তাদেরকে  লিগ্যাল নোটিশ দেয়া হবে। প্রয়োজনে আদালতে মামলা হবে।”

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরে বিদ্যুৎ বিভ্রাটের ফাঁদে কাপাসিয়া জনপদ। কী কারণে ঘন্টার পর ঘন্টা, দিনের পর দিন বিদ্যুৎ বন্ধ  থাকে সে তথ্য গ্রাহকদের জানায় না,  এমনকি তা জানতে চেয়ে কোনো গ্রাহক ফোন দিলে তা রিসিভও করে না ‘কুখ্যাত ডিজিএম’ সেলিনা আক্তার। অজ্ঞাত রহস্যের ঘরে ঠান্ডা মাথায় জনপ্রতিনিধিরা ঘুমিয়ে থাকলেও তাদের ভোটার পল্লী বিদ্যুতের গ্রাহকেরা চরম ভোগান্তিতে পড়ে রাগে ক্ষোভে ফুসছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও চলছে তুমুল সমালোচনার ঝড়। পরিত্রাণের অপেক্ষায় কাপাসিয়াবাসী।