ক্যারিয়ার

আমরা, কর্মীগণই মূলতঃ বিজ্ঞাপন চ্যানেলের মালিক। আমাদের সার্বিক পৃষ্ঠপোষকতায় আাছে বিশ্বখ্যাত একটি ভিন্নধর্মী কোম্পানি ওয়ার্ল্ড সেফগার্ড এন্ড মিডিয়া লিমিটেড। এটি সারা দুনিয়ায় নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনা, মানবাধিকার ও মিডিয়া নিয়ে কাজ করে। পৃথিবীতে এই প্রকৃতির কোম্পানি এটাই প্রথম। কোম্পানিটি আমাদের জন্য এক অপূর্ব মালিকানা ব্যবস্থা করে আত্মসম্মান লাভের সুযোগ দিয়েছেন। কেউ যখন বিজ্ঞাপন চ্যানেলের কোনো কর্মী হিসেবে যোগদান করেন, তখনই স্বয়ংক্রিয়ভাবে তিনি এর মালিকানা পেয়ে যান এবং মালিক হিসেবেই পারফর্মেন্স করেন। মিডিয়া জগতে এই প্রথম এই চ্যানেলে কর্মীদের মালিকের মর্যাদা দেয়া হয়েছে।

মালিক-কর্মীর ভেতর প্রভু-ভৃত্য সম্পর্ক, দ্বন্দ্ব ও হানাহানি এখানে নেই। আমরা অন্য সবার চেয়ে আলাদা। আমাদের আকাঙ্খা, অভিজ্ঞতা, দায়িত্ব ও কর্তব্য এবং আমাদের প্রতিটি নতুন ধাপ অনেক বেশি তাৎপর্যপূর্ণ। প্রয়োজনীয় গুণাগুণ, যোগ্যতা ও আনুষঙ্গিক দক্ষতার সাথে ত্রিপক্ষীয় সুবিধা প্রদান, অর্থাৎ জনকল্যাণ, চ্যানেলটির অগ্রগতি এবং নিজেদের জীবন ধারার উন্নয়ন নিশ্চিত করে আমরা দায়িত্বশীল নাগরিক হিসেবে ভূমিকা পালন করি। এখানে আমাদের প্রতিটি পদক্ষেপ হয় চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি, আমাদের উৎসাহিত করে আরও বেশি কিছু করায়, সুযোগ করে দেয় আমাদের মধ্যকার টিম প্লেয়ার ও লিডারকে সামনে নিয়ে আসার। আমাদের এমন একটি চ্যানেল গড়ে তুলতে সহায়তা করুন, যেখানে আপনি প্রধান।

আপনাদের সহায়তায় আমরা এই চ্যানেলটিকে সাফল্যের শীর্ষে নিয়ে আসতে চেষ্টা করছি। সময়ের প্রত্যাশা পূরণ করছি। সময়ের সাথে চলছি আগামীর পথে। ফলে আজ অনেক অসম্ভবই হয়ে যাচ্ছে সম্ভব। প্রাপ্তিতে ভরে যাচ্ছে, পেয়েছি ত্যাগের চেয়ে বেশি। আমরা বিশ্বাস করি, আমাদের প্রত্যেকের মাঝে অনেক বেশি কিছু করার ক্ষমতা আছে, আছে রাত থেকে নতুন দিন নিয়ে আসার। এটা আরও সহজ যখন আমরা একতাবদ্ধ। ঐক্যই আমাদের সবচেয়ে বড় শক্তি। আমরা সবাই একসাথে বসি, সর্বোচ্চ পদের কর্তা থেকে শুরু করে সকলেই। আমাদের নেতৃত্ব স্বচ্ছ, খোলামেলা, বন্ধুভাবাপন্ন। আমরা যেমন আমাদের লিডারদের কাছ থেকে শিখি, তাঁরাও আমাদের কাছ থেকে শেখেন। তাঁরা একইসাথে আমাদের শিক্ষক, আদর্শ এবং বন্ধুও। আমরা একসঙ্গে কাজ করে আনন্দ পাই। আমাদের সঙ্গী হোন আপনিও


আপনার যে কোনো মতামত, পরামর্শ জানাতে কিংবা তথ্য প্রাপ্তির জন্য এখানে ক্লিক করুন।

 বিজ্ঞাপন চ্যানেলের কর্মে নিয়োগ বা পদ লাভের ক্ষেত্রে সকল নাগরিকই সমান। তবে এই চ্যানেলে শুধু তাদেরই চাকরি হয় যারা একটি পদের জন্য সবচেয়ে বেশি উপযুক্ত। তাই চাকরির পদের যোগ্যতা, আনুষঙ্গিক দক্ষতা ইত্যাদির পাশাপাশি আমরা দেখি যে, আবেদনকারী চ্যানেলটির লক্ষ্য, ভিশন, ভ্যালু ও নেতৃত্ব প্রক্রিয়ার জন্য যোগ্য কিনা। এক কথায় আমরা কেবল দক্ষতা ও যোগ্যতার জন্য চাকরি দেই না, বরং চাকরি দেই মানুষ হিসেবে কে কেমন, তার ওপর ভিত্তি করেও। তাই আপনার ব্যক্তিত্ব আমাদের কালচার ও পরিবেশের সাথে মানানসই হতে হবে।

প্রত্যেক আবেদনকারী মনে করতে পারেন যে, তিনি এই চ্যানেলের ভাবাদর্শে বিশ্বাসী, মেধাবী, উদ্যোমী, কর্মঠ, সচ্চরিত্র ও স্মার্ট। দক্ষতা, যোগ্যতা, ব্যক্তিত্ব সবকিছুই তার রয়েছে। তাই তিনি চ্যানেলটির কর্মে নিয়োগ বা পদ লাভের জন্য উপযুক্ত। তথাপিও কেন তাকে কখনও ডাকা হয়নি এমন প্রশ্ন উত্থাপিত হতেই পারে। তবে আবেদনকারীর জানা থাকতে পারে যে, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই আমাদের যত কর্মী প্রয়োজন হয়, তার চেয়ে অনেক বেশি পরিমাণ আবেদন জমা পড়ে যায়। আমরা যেহেতু কাউকে ইন্টারভিউতে ডাকার আগে অনেকগুলো ধাপে তাদের যাচাই করি, অনেকে সে সময় বাদ পড়ে যায়। কেউ কেউ প্রতিযোগিতায় হেরে যায়। আপনার সুযোগ বাড়ানোর জন্য শুধুমাত্র সে পদের জন্য আবেদন করতে পারেন যার সকল শর্ত পূরণে আপনি সক্ষম।

এই চ্যানেলের কর্মীদের তিনটি শ্রেণী আছে- অতিথি কর্মী, চুক্তিভিত্তিক কর্মী ও স্থায়ী কর্মী। কর্মীদের এই শ্রেণীবিন্যাসের উদ্দেশ্য হচ্ছে সর্বস্তরে উপযুক্ত, বাঞ্ছিত ও পরীক্ষিত কর্মীদের বসিয়ে চ্যানেলের কার্যাদি সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করা। সে কারণে আমরা পদোন্নতির মাধ্যমে নিয়োগ দেয়াকে প্রাধান্য দেই। এমতাবস্থায়, আপনি সরাসরি স্থায়ী কর্মী বা চুক্তিভিত্তিক কর্মী হওয়ার জন্য অপেক্ষায় থাকার চেয়ে উত্তম অতিথি কর্মী হিসেবে নিয়োগ লাভ করা। যদি এই সুযোগ পান, তাহলে কর্মে মনোযোগ ও আত্মবিশ্বাস রেখে এগিয়ে যান। এতেই চ্যানেলের বৃহৎ পরিবারের সঙ্গে সম্পৃক্তর হওয়ার স্বাদ পাবেন। অনেক বেশি আনন্দিত হবেন প্রতিটি ধাপ শেষে যখন এর ফলাফল পাবেন। দেখবেন যাচিত সময়ের আগেই পদোন্নতির মাধ্যমে স্থায়ী কর্মী হয়ে গেছেন। তবে বিশেষযোগ্য ব্যক্তিরা সরাসরি চুক্তিভিত্তিক বা স্থায়ী পদের আবেদন করাই শ্রেয়।


আপনার যে কোনো মতামত, পরামর্শ জানাতে কিংবা তথ্য প্রাপ্তির জন্য এখানে ক্লিক করুন।

Related imageআপনি জানেন, যে কেউ বিজ্ঞাপন চ্যানেল অনলাইনে বিজ্ঞাপন পোষ্ট করতে পারেন। তবে কেউ যদি রেজিষ্ট্রেশন করার পর সর্বমোট ৫টিরও বেশি বিজ্ঞাপন পোষ্ট করেন, তাহলে তাকে নিয়োগপত্র দেয়া হয়। বিজ্ঞাপন চ্যানেলে এই ব্যক্তিদেরই বলা হয় অতিথি কর্মী। তারা আকর্ষণীয় কমিশন/ভাতা বা নির্ধারিত বেতনের বিনিময়ে কাজ করেন। নিজেদের সুযোগমত বিজ্ঞাপন পোষ্ট করে ওই কমিশন বা ভাতা কিংবা বেতন পান।অতিথি কর্মীরা চ্যানেলের সংবাদদাতা/সাংবাদিক হিসেবেও কাজ করে থাকেন।

নিয়োগপত্রে কার্যভাতা বা বেতনের পরিমাণ অথবা কমিশনের হার উল্লেখ থাকে। অতিথি কর্মী পদত্যাগ না করলে বা তাকে চাকরিচ্যূত না করা হলে সারা জীবনই এই চাকরি করা যায়। অতিথি কর্মী সর্বোচ্চ স্বাধীনতা ভোগ করতে পারেন। চাকরির পাশাপাশি লেখাপড়া চালিয়ে যেতে পারেন। নিজ বাড়ি বা অন্য কোন স্থানে থেকে এই চাকরি করা যায়। এছাড়া তারা অন্য কোথাও ফুলটাইম চাকরি, ব্যবসা-বাণিজ্য, গৃহকর্ম, কৃষি কাজ কিংবা অন্য যে কোনো কাজ করতে পারেন।

অতিথি কর্মী হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর নিজের নীতি ও কার্যাবলী ভালো থাকলে আপনি চুক্তিভিত্তিক বা স্থায়ী কর্মী হিসেবে পদায়নের সুযোগ পাবেন। আপনি যাতে সেই সুযোগ পান, তজ্জন্য বিজ্ঞাপন চ্যানেল সব ধরণের সহায়তার ব্যবস্থা করে রেখেছে।


আপনার যে কোনো মতামত, পরামর্শ জানাতে কিংবা তথ্য প্রাপ্তির জন্য এখানে ক্লিক করুন।

বিজ্ঞাপন চ্যানেলের হাই পারফর্মেন্সের জন্য মাঝেমধ্যে আকর্ষণীয় বেতন-ভাতায় চুক্তিভিত্তিতে কর্মী নেয়া হয়ে থাকে। চুক্তিভিত্তিক কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে, তাদের অগ্রাধিকার যারা রেজিষ্ট্রেশন করার পর শতাধিক বিজ্ঞাপন পোষ্ট করেন। এতদিন যারা অতিথি কর্মী হিসেবে কর্মরত তাদের কাছে ধাপটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

চুক্তিভিত্তিক কর্মী হিসেবে নিয়োগ লাভ করে অতি ধৈর্য ও সতর্কতার সাথে এই খন্ডকাল অতিক্রম করতে পারলেই স্থায়ী কাজের ব্যবস্থা। এই সময়টা মূলতঃ প্রশিক্ষণকাল বা বিশেষ মুহূর্ত যা তাদেরকে দক্ষ ও নীতিনিষ্ঠ কর্মী হিসেবে গড়ে উঠতে সাহায্য করে। ফলে তারা সঠিকভাবে অগ্রসর হতে পারেন এবং নির্মাণ করতে সক্ষম হন যাচিত দিনের ভিত।

চুক্তিভিত্তিক কর্মী নিয়োগের পদ্ধতি দুটি- পদোন্নতির মাধ্যমে অতিথি কর্মীকে চুক্তিভিত্তিক কর্মী হিসেবে নিয়োগ আর অপরটি সরাসরি চুক্তিভিত্তিক কর্মী নিয়োগ। অতিথি কর্মীর বিগত রেকর্ডের ভিত্তিতে খন্ডকালীন বা চুক্তিভিত্তিক কর্মী হিসেবে উন্নীত করা হয়। কিন্তু সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে বিজ্ঞাপন দেয়া হয়।


বর্ণিত বিষয়ে আপনার যে কোনো মতামত, পরামর্শ জানাতে কিংবা তথ্য প্রাপ্তির জন্য এখানে ক্লিক করুন।

বিজ্ঞাপন চ্যানেলে স্থায়ী ক্যারিয়ার গড়ে তোলা মানে শুধুই জীবিকা নির্বাহের উপায় নয়, সুস্থ ধারার পরিকল্পিত জীবনের ব্যবস্থাও। তাই এই চ্যানেলের জব অন্যান্য মিডিয়ার চেয়ে আলাদা; গুণে, মানে সবদিক থেকেই সেরা, অতুলনীয়। শ্রেষ্ঠ ক্যারিয়ার আর ভাবনাহীন নিরাপদ জীবন গড়তে আপনিও হতে পারেন বিজ্ঞাপন চ্যানেলের একজন গর্বিত স্থায়ী কর্মী।

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট অনুযায়ী মিডিয়ার কর্মীদের বেতন ও প্রদেয় অন্য সুবিধাদি যথেষ্ট নয়। তা দিয়ে মৌলিক প্রয়োজনের ব্যবস্থাও হয় না। তাই অনেকেই বাধ্য হয় অন্যায় সুবিধা গ্রহণ করতে। আমাদের চ্যানেল সেপথে চলতে চায় না। তাই প্রথম পর্যায়ে স্থায়ী কর্মীদের সময়োপযোগী ও মানানসই বেতনভাতাসহ সকল সুযোগ-সুবিধা প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। পরবর্তীতে ধাপে ধাপে চুক্তিভিত্তিক কর্মী ও অতিথি কর্মীদের অনুরূপ সুযোগ-সুবিধার আওতায় আনা হবে। তখন স্থায়ী কর্মীদের সুবিধাদি আরও অনেক বেশি বাড়বে।

স্থায়ী কর্মী হতে আপনাকে প্রথমে চুক্তিভিত্তিক কর্মী হতে হবে। এরপর প্রয়োজনীয় যোগ্যতা প্রদর্শন করতে পারলে আপনি স্থায়ী কর্মী হিসেবে পদায়নের সুযোগ পাবেন। এছাড়া নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জারী করেও সরাসরি স্থায়ী কর্মী নিয়োগ করা হয়। সেক্ষেত্রে এখানে অথবা অন্য মিডিয়া বা সোর্সে কর্মপদ খালি হওয়ার বিজ্ঞাপন দেয়া হয়।


আপনার যে কোনো মতামত, পরামর্শ জানাতে কিংবা তথ্য প্রাপ্তির জন্য এখানে ক্লিক করুন।

এই পেজের তথ্য সহায়ক ছিল? হ্যাঁ না 13 জনের মধ্যে 13 জন এই পেজটিকে হ্যাঁ বলেছেন ।