গাজীপুর রেজিস্ট্রার অফিসের পিয়ন আউয়ালের খুঁটির জোর কোথায়?

গাজীপুর রেজিস্ট্রার অফিস

গাজীপুর প্রতিনিধি : গাজীপুরে প্রকাশ্যে সরকারি পুকুর ভরাট করে পাকা বাড়ি নির্মাণ করা হচ্ছে। জেলা প্রশাসনের সন্নিকটে জয়দেবপুর ট্যাংকির পাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটলেও কোন ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না।

ফলে অভিযুক্ত জেলা রেজিস্ট্রার কার্যালয়ের রেকর্ড রুমের পিয়ন আবদুল আউয়াল এখন বেপরোয়া। তাকে জেলা প্রশাসনের সাধারণ শাখার কর্মচারী রইছ উদ্দিন সহযোগিতা করছেন বলে অভিযোগ।

এর আগে বিষয়টি নিয়ে গত ২১ ডিসেম্বর বিজ্ঞাপন চ্যানেলে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

তখন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মাহমুদ হাসান বলেছিলেন, পুকুরের যতটুকু ক্ষতি হয়েছে, সেটুকু সাবেক অবস্থায় ফিরিয়ে নেওয়া হবে।

এরপর তিন মাস পার হলেও কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। উল্টো দখল তৎপরতা বেড়েছে।

শ্রেণি পাল্টে লিজ : ৪৩৩ নং খতিয়ানভুক্ত আরএস ১৪৯৫ নং দাগের ওই পুকুরের আয়তন ৮১ শতাংশ। সিএস দাগ থেকেই এর শ্রেণি পুকুর।

এটি আউয়াল গং দীর্ঘদিন ধরে দখলে রেখেছেন। দক্ষিণ অংশে পর্যায়ক্রমে প্রায় ২৫ শতাংশ ভরাট করে বাড়ি ও দোকান নির্মাণ করে ভাড়া দেওয়া হয়েছে।

এদিকে আউয়াল গত নভেম্বরে কৌশলে পুকুরের শ্রেণি বাড়ি দেখিয়ে লিজ বাগিয়ে নিয়েছেন। যার ভিপি কেস নং ৩৮৬/৭৫। পরে এলাকাবাসীর পক্ষে জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর বরাবর লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়।

এ ছাড়া পুকুরের পশ্চিম অংশে আবর্জনা ফেলে ভরাটের চেষ্টা চলছে। দূষণে পানি ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

ঘটনাটি জেলা প্রশাসককে জানানো হলে তিনি ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন। এরপরও নির্মাণ কাজ অব্যাহত রয়েছে।

আরও পড়ুন: গাজীপুরে সরকারি পুকুর চুষে খাচ্ছে ডিআর অফিসের পিয়ন আউয়াল