জয়পুরহাটে রেলওয়ের কবরস্থান দখল করে বসতঘর নির্মাণ

কবরস্থান

নিয়াজ মোরশেদ, জয়পুরহাট: জয়পুরহাটের আক্কেলপুর রেল স্টেশনের দক্ষিণ পূর্ব স্থানে রেলওয়ের কবরস্থানের জায়গা দখল করে বসত ঘর নির্মাণ করছে তৃতীয় লিঙ্গের এক ব্যক্তি। এঘটনায় স্থানীয়রা আক্কেলপুর স্টেশন মাষ্টার খাতিজা বেগমের কাছে কবরস্থানে বসতঘর নির্মাণ বন্ধ করতে অভিযোগ দিলেও বন্ধ হয়নি কবরস্থান দখল।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, রেল স্টেশনের দক্ষিণ পূর্ব স্থানে বিভিন্ন সময়ে রেলে কাটা বেওয়ারিশ লাশ ওই কবরস্থানে মাটি দেওয়া হয়। হঠাৎ করে স্থানীয় কিছু প্রভাবশালি ব্যক্তিদের সহযোগীতায় (তৃতীয় লিঙ্গ) ওই ব্যক্তি কবরস্থানের উপর বসতঘর নির্মাণ কাজ শুরু করে। এসময় স্থানীয় লোকজন এতে বাধা দেয়। পরে ওই ব্যক্তি ফের প্রভাবশালী ব্যক্তিদের সহযোগীতায় আবারও নির্মাণ কাজ শুরু করেন।

হাস্তাবসন্তপুর গ্রামের বাসিন্দা নূর-উননবী বলেন, রেলের জায়গায় কবরস্থানটিতে বিভিন্ন সময়ে ট্রেনে কাটা ও বেওয়ারিশ লাশ ওই স্থানে কবর দেয়া হতো। হঠাৎ করে (তৃতীয় লিঙ্গ) ওই ব্যক্তি স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তিদের মোটা অংকের টাকা দিয়ে তাদের উপস্থিতিতে কবরস্থানের উপর বসতঘর নির্মাণ কাজ শুরু করেন। আমি সহ গ্রামের আরো কিছু লোকজন কবরস্থানে বসতঘর নির্মাণ করতে বাধা দিয়ে ছিলাম এবং স্টেশন মাষ্টার খাতিজা বেগমের কাছে বলে ছিলাম কবরস্থান দখল বন্ধ করতে। কিন্তু কোন লাভ হয়নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক গৃহবধু জানান, রেলের জায়গাতে কবর স্থানে অনেক বেওয়ারিশ কবর রয়েছে হঠাৎ করে সেখানে বসতঘর নির্মাণ করা হচ্ছে। আমরা বাধা দিয়েছিলাম স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যাক্তিরা আমাদের উপর চড়াও হয়ে হুমকি ধমকি দিয়েছে। কবরস্থানের পবিত্রতা রক্ষার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

আক্কেলপুর রেল স্টেশন মাষ্টা খাতিজা বেগম বিজ্ঞাপন চ্যানেলকে বলেন, রেলের জায়গার কবরস্থানের উপর এক ব্যক্তি বসতঘর নির্মাণের খবরটি জানার পর ওই ব্যক্তিকে ঢেকে নিষেধ করা হয়েছে। যদি সে অমান্য করে তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।