প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ২০ মে : সহকারী জজ পদের জন্য প্রস্তুতি

আদালত

ডেস্ক রিপোর্ট: দশম বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস (১০ম বিজেএস) সহকারী জজ পদের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা আগামী ২০ মে অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের ওয়েবসাইট ও বিভিন্ন পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের মাধ্যমে এ পরীক্ষার বিষয়টি জানানো হয়েছে।

কমিশন সূত্রে জানা গেছে, এবার মোট ৮ হাজার ৩০১ জন প্রার্থী আবেদন করেন। আবেদনকৃত প্রার্থীদের আবেদনপত্র যাচাই-বাছাই করে চূড়ান্তভাবে মোট ৭ হাজার ৯৩০ জন প্রার্থীর প্রিলিমিনারি পরীক্ষা নেওয়া হবে। ঢাকার তিনটি কেন্দ্রে রোল নম্বর অনুযায়ী ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত ১ ঘণ্টার পরীক্ষা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের উপসচিব মো. আল মামুন বিজ্ঞাপন চ্যানেলকে বলেন, প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় মোট ১০০টি এমসিকিউ প্রশ্ন থাকবে। প্রতিটি প্রশ্নের মান হবে ১ নম্বর। সাধারণ বাংলা, সাধারণ ইংরেজি, বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়সমূহ, সাধারণ গণিত, দৈনন্দিন বিজ্ঞান, বুদ্ধিমত্তা এবং আইন বিষয়সমূহের ওপর প্রশ্ন করা হবে। তবে এবারই প্রথম প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা হবে। পরীক্ষায় ন্যূনতম পাস নম্বর হবে ৫০। এরই মধ্যে প্রিলিমিনারি পরীক্ষার প্রবেশপত্র প্রার্থীর নিজ নিজ ঠিকানায় ডাকযোগে পাঠানো হয়েছে। উল্লেখ্য, গত মার্চ মাসে বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশন সচিবালয় সহকারী জজ পদে ১১৫ জনকে নিয়োগের এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত একজন সহকারী জজ জাতীয় বেতন স্কেল ২০০৯ অনুযায়ী ১৬ হাজার টাকা স্কেলে বেতন পাবেন। আল মামুন আরও বলেন, জ্যেষ্ঠতা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে একজন সহকারী জজ পদোন্নতি পেয়ে সিনিয়র জজ, যুগ্ম জেলা জজ, অতিরিক্ত জেলা জজ ও জেলা জজ হতে পারেন।

সহকারী জজ পদে সপ্তম ব্যাচে নিয়োগ পান মো. আরিফুল ইসলাম। প্রিলিমিনারি পরীক্ষার শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বাংলা অংশের জন্য নবম থেকে দশম শ্রেণির ব্যাকরণের অধ্যায়গুলো পড়লে প্রশ্ন পাওয়া যাবে। এ ছাড়া বিভিন্ন লেখকের নাম, উক্তি, জন্ম-মৃত্যু সালগুলো জানা থাকলে বাংলা অংশে ভালো করা যাবে। তিনি বলেন, আর গণিতে ভালো করতে হলে ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির বইগুলো বারবার চর্চা করলে প্রশ্ন পাওয়া যাবে। ইংরেজির জন্য গ্রামারগুলো পড়তে হবে মনোযোগসহকারে। এই গ্রামার অংশ থেকেই বেশি প্রশ্ন থাকে।

বাংলাদেশ-আন্তর্জাতিক বিষয় ও দৈনন্দিন বিজ্ঞানের জন্য বাংলাদেশ অংশে বাংলাদেশের ইতিহাস, মুক্তিযুদ্ধ, জলবায়ু, সংস্কৃতি, খেলাধুলা, বিভিন্ন জেলার আয়তন, অর্থনীতি ইত্যাদি সম্পর্কে অবগত থাকতে হবে। আর আন্তর্জাতিক অংশের জন্য বিভিন্ন দেশের মুদ্রা, দিবস, পুরস্কার ও সম্মাননা, সাম্প্রতিক ঘটনা থেকে প্রশ্ন পাওয়া যেতে পারে। এ ছাড়া বাজারে সাধারণ জ্ঞানের বিভিন্ন প্রকাশনীর বই ও দৈনিক পত্রিকাগুলো পড়লেও কাজে দেবে। আর বারবার চর্চা করতে হবে বিগত বছরের সহকারী জজ নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নগুলো। আর আইন অংশে ভালো করতে হলে পড়তে হবে প্রার্থীর সম্মান শ্রেণির আইন-সম্পর্কিত বইগুলো।