ভালুকায় দুর্নীতির অভিযোগে জেলা হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা আটক

তমাল কান্তি সরকার: ময়মনসিংহের ভালুকা থেকে সাবেক জেলা নিরীক্ষা ও হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা দুলাল উদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে ময়মনসিংহ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সোমবার (১০ এপ্রিল) রাতে তাকে ভালুকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। এই কর্মকর্তার চারটি ব্যাংক হিসাবে জ্ঞাত আয় বহির্ভুত এক কোটি সাত লক্ষ টাকার সম্পদের অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা গেছে ।

দুদক ময়মনসিংহের সহকারী পরিচালক একে এম বজলুর রশিদ এই খবর নিশ্চিত করেছেন। দুলাল ময়মনসিংহ জেলায় জেলা হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা হিসাবে কর্মরত ছিলেন। বর্তমানে তিনি গৃহায়ন ও পুর্ত মন্ত্রনালয়ের নিরীক্ষা ও হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা হিসাবে কর্মরত আছেন। দুলাল উদ্দিন গফরগাঁও উপজেলার দিঘা গ্রামে মৃত: চাঁনমিয়ার ছেলে। তিনি দুদুকের কাছে ২০১৫ইং সালের ২১ অক্টোবর দাখিল কৃত সম্পদ বিবরণীতে তার স্ত্রীসহ প্রায় ৬৮ ল ৪৬ হাজার একশত উনাশি টাকার সম্পদের হিসাব গোপন করেছেন। এর পর অনুসন্ধান শেষে ৩১ জানুয়ারী তার নামে দুদকের সংশ্লিষ্ট আইনে ময়মনসিংহ কোতয়ালি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন দুদকের সহকারী পরিচালক একেএম বজলুর রশিদ।

এদিকে মামলার এজাহারে জানা যায়, দুদকের ছক অনুযায়ী বিগত ২১ অক্টোবর তার ও তার স্ত্রী এবং নির্ভরশীল ব্যক্তিদের সম্পদের হিসাব দাখিল করতে বলা হয়। সে মতে দুলাল উদ্দিন পরের বছর ১০ ফেব্রয়ারী দুদকের সচিব, দুদকের প্রধান অফিসসহ বিভিন্ন দপ্তরে সম্পদ বিবরনী দাখিল করেন। বিবরণীতে ভালুকার হবিরবাড়ি এলাকায় ৭ শতক জমির ওপর ৫৫ ল টাকা ব্যায়ে তিন তলা বাড়ি নির্মান এবং ৪টি ব্যাংক হিসাবে ১৩ লক্ষ ৪৬ হাজার একশত উনশি নগদ টাকার তথ্য গোপন করেছেন। এতে তিনি ৭৮ লক্ষ ৮১ হাজার ৫২ টাকার তথ্য গোপন করে অপরাধ করেছেন বলে জানিয়েছেন দুদকের সহকারী পরিচালক একে এম বজলুর রশিদ।