ভালুকায় বনাঞ্চলে শিল্প কারখানা ও বহুতল ভবন নির্মাণ

ভবন

তমাল কান্তি সরকার, ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি: ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার হবিরবাড়ী বনাঞ্চলে গড়ে উঠছে বহুতল ভবন।পাশাপাশি পাল্লা দিয়ে গড়ে উঠেছে শিল্প কারখানা। স্থানীয় বনবিভাগ এসব দেখেও না দেখার ভান করছে। বনবিভাগ থাকলেও নিস্ক্রিয়।

এলাকাবাসী ও বনবিভাগ সূত্রে জানা যায়, ভালুকা উপজেলায় প্রায় ২৩ হাজার একর বনভূমি থাকলেওবাস্তবে তা ৬হাজার একরও নেই। বনবিভাগ ও এলাকার কতিপয় ভূমিদস্যু ও দালাল চক্রের কারনে এসব বনভূমি বেহাত হয়েছে বলে স্থানীয় সাধারণ লোকজন মনে করেন। বনবিভাগ ও উচ্চপদস্থ সরকারী আমলাদের যোগ সাজসে প্রায় কয়েক যুগ ধরে ঐসব এলাকার বনভূমি থেকে বন দস্যুরা শাল-গজারী গাছ কেটে উজার করে দেয় বন! গাছকাটা শেষ হলে শুরু হয় জমি দখলের হিড়িক।পরে স্থানীয় ভূমি দস্যুরা বনের জমির জাল কাগজপত্র তৈরীকরে কম দামে বিক্রি শুরু করে। এসব উঁচু জমিতে নজর পড়ে লোভী এক শ্রেণীর শিল্প উদ্যোক্তাদের।গড়ে উঠতে থাকে ছোট বড় শিল্পকারখানা ও বহুতল ভবন।

এ সব বনের জমি বিক্রি করে কেউ কেউ টাকার পাহাড় গড়ে রাতারাতি আঙ্গুল ফুলে কলাগাছও হয়েছেন। শোনা যাচ্ছে এবার জাতীয় নির্বাচনে ঐ এলাকার কিছু হঠাৎ ফুলে উঠা কলাগাছও প্রার্থী হতে পারেন।