ভিশন ফ্যান কারখানা মাসে ৬০ হাজার ফ্যান তৈরি করছে

দেশরে অন্যতম বৃহৎ শিল্পগোষ্ঠী প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের ভিশন ফ্যান কারখানায় ফ্যান তৈরি হচ্ছে। এটি দেশের অন্যতম বৃহৎ এ ফ্যান নির্মাণ কারখানা।

শ্রমিকদের অধিকাংশই নারী। তরুণ নারী শ্রমিকরা যেন আধুনিক মেশিনগুলোর সঙ্গে কথা বলছেন অহর্নিশ। ছবি : মাহবুব আলম

শ্রমিকদের অধিকাংশই নারী। তরুণ নারী শ্রমিকরা যেন আধুনিক মেশিনগুলোর সঙ্গে কথা বলছেন অহর্নিশ।

কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এই কারখানার যাত্রা শুরু ২০১৩ সালের আগস্ট মাসে। প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের হবিগঞ্জ ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে প্রথমে সীমিত পরিসরে ভিশন ফ্যান তৈরি শুরু হয়। ছবি : মাহবুব আলম

কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এই কারখানার যাত্রা শুরু ২০১৩ সালের আগস্ট মাসে। প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের হবিগঞ্জ ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে প্রথমে সীমিত পরিসরে ভিশন ফ্যান তৈরি শুরু হয়।

কর্মীদের কাজে অযত্ন নেই, নেই কোনো অবহেলা। কারখানার শ্রমিকবান্ধব পরিবেশই তাদের আপন করে তুলেছে। পরিশ্রম আর নিষ্ঠার মধ্য দিয়ে শ্রমিকরাও যোগ্যতার প্রমাণ রাখছেন সেখানে। ছবি : মাহবুব আলম

কর্মীদের কাজে অযত্ন নেই, নেই কোনো অবহেলা। কারখানার শ্রমিকবান্ধব পরিবেশই তাদের আপন করে তুলেছে। পরিশ্রম আর নিষ্ঠার মধ্য দিয়ে শ্রমিকরাও যোগ্যতার প্রমাণ রাখছেন সেখানে।

এ করাখানায় শুরুর দিকে দৈনিক মাত্র একশ-দেড়শ ফ্যান তৈরি করা হতো। দুই বছরেই আমূল পরিবর্তন আসে উৎপাদনে। এখন প্রতিদিন প্রায় দুই হাজার ফ্যান তৈরি হচ্ছে এ ফ্যাক্টরিতে। ছবি : মাহবুব আলম

এ করাখানায় শুরুর দিকে দৈনিক মাত্র একশ-দেড়শ ফ্যান তৈরি করা হতো। দুই বছরেই আমূল পরিবর্তন আসে উৎপাদনে। এখন প্রতিদিন প্রায় দুই হাজার ফ্যান তৈরি হচ্ছে এ ফ্যাক্টরিতে।

প্রতি মাসে গড়ে ৬০ হাজার ফ্যান তৈরি হচ্ছে এখানে। দুই শিফটে প্রতিদিন মোট ৬০০ শ্রমিক কাজ করছেন, যাদের ৬০ শতাংশই নারী। ছবি : মাহবুব আলম

প্রতি মাসে গড়ে ৬০ হাজার ফ্যান তৈরি হচ্ছে এখানে। দুই শিফটে প্রতিদিন মোট ৬০০ শ্রমিক কাজ করছেন, যাদের ৬০ শতাংশই নারী।

ফ্যানে রং লাগানোর কাজে ব্যস্ত এক কর্মী। এ বছর দুই লাখ ৪০ হাজার ফ্যান বাজারজাত করার লক্ষ্য নেয়া হয়েছে, যা গতবারের (২০১৬) চেয়ে এক লাখ ১০ হাজার বেশি। ছবি : মাহবুব আলম

ফ্যানে রং লাগানোর কাজে ব্যস্ত এক কর্মী। এ বছর দুই লাখ ৪০ হাজার ফ্যান বাজারজাত করার লক্ষ্য নেয়া হয়েছে, যা গতবারের (২০১৬) চেয়ে এক লাখ ১০ হাজার বেশি।

সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয়ভাবে তৈরি হয় ভিশন ফ্যানের প্রতিটি পার্টস, বিশুদ্ধ কাঁচামাল দিয়ে তৈরির ফলে এর প্রতিটি অংশ অত্যন্ত মজবুত। বিশুদ্ধ অ্যালুমিনিয়াম ইনগট নিশ্চিত করে দীর্ঘ স্থায়িত্বও নিশ্চিত করা হয়। ছবি : মাহবুব আলম

সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয়ভাবে তৈরি হয় ভিশন ফ্যানের প্রতিটি পার্টস, বিশুদ্ধ কাঁচামাল দিয়ে তৈরির ফলে এর প্রতিটি অংশ অত্যন্ত মজবুত। বিশুদ্ধ অ্যালুমিনিয়াম ইনগট নিশ্চিত করে দীর্ঘ স্থায়িত্বও নিশ্চিত করা হয়।

সিলিং ফ্যানের দাম দুই হাজার ৫৫০ থেকে তিন হাজার ২৫০ টাকা। ভিশন ফ্যানের ডিলার ও আরএফএল-এর বিভিন্ন আউটলেট-বেস্টবাই, ভিশন ইম্পোরিয়াম ও ইজি বিল্ড-এর মাধ্যমে দেশের সর্বত্র এ পণ্য বাজারজাত করা হয়। ছবি : মাহবুব আলম

সিলিং ফ্যানের দাম দুই হাজার ৫৫০ থেকে তিন হাজার ২৫০ টাকা। ভিশন ফ্যানের ডিলার ও আরএফএল-এর বিভিন্ন আউটলেট-বেস্টবাই, ভিশন ইম্পোরিয়াম ও ইজি বিল্ড-এর মাধ্যমে দেশের সর্বত্র এ পণ্য বাজারজাত করা হয়।

কারখানায় গিয়ে দেখা যায়, সেখানে আধুনিক কিউসি ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। উৎপাদনের প্রতিটি ধাপে স্বয়ংক্রিয় মেশিনে মান নিয়ন্ত্রণ করা হয়। ছবি : মাহবুব আলম

কারখানায় গিয়ে দেখা যায়, সেখানে আধুনিক কিউসি ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। উৎপাদনের প্রতিটি ধাপে স্বয়ংক্রিয় মেশিনে মান নিয়ন্ত্রণ করা হয়।

কারিগরি বিষয়ে ফ্যাক্টরির টেকনেশিয়ানরা জানান, ভিশন ফ্যানে রোবোটিক পদ্ধতিতে ডাই কাস্টিং করা হয়। এর ফলে ফ্যানের সঠিক পুরুত্ব থাকে ও কর্মীদের পরিশ্রমও কমে এসেছে।

কারিগরি বিষয়ে ফ্যাক্টরির টেকনেশিয়ানরা জানান, ভিশন ফ্যানে রোবোটিক পদ্ধতিতে ডাই কাস্টিং করা হয়। এর ফলে ফ্যানের সঠিক পুরুত্ব থাকে ও কর্মীদের পরিশ্রমও কমে এসেছে। ছবি : মাহবুব আলম