শ্রীপুরে জমির বিরোধে মুদি ব্যবসায়ী খুন, ২ নারী গ্রেফতার

শ্রীপুর(গাজীপুর) প্রতিনিধি: শ্রীপুর উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের ধনুয়া গ্রামে বিরোধপূর্ণ জমি নিয়ে স্বজনদের সাথে সংঘর্ষে সাহিদ নামে এক মুদি ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। এঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে দু’নারীকে গ্রেফতার করে শ্রীপুর থানা পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন ধনুয়া গ্রামের আবু হানিফার মেয়ে খোদেজা (৩৫) ও সাবিনা (২৫)।

শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টায় সংঘর্ষ হলে হাসপাতালে নেয়ার পথে বিকেলে সাহিদ মারা যান।  নিহত সাহিদ ধনুয়া গ্রামের আব্দুল কাদিরের ছেলে আব্দুস সাহিদ (৪০)। তিনি নিজ বাড়ির সামনে মুদি দোকান পরিচালনা করতেন।

নিহতের স্বজন ও পুলিশের ভাষ্যমতে, ধনুয়া গ্রামের ইমান আলী ও তার ভাই হানিফার সঙ্গে একই এলাকার মৃত আব্দুল কাদের মিয়ার ছেলে সাহিদ মিয়ার বসত বাড়ীর জমি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধপূর্ণ জমিতে মৃত হানিফার মেয়ে সাবিনা সীমানা নির্ধারণ ও একটি টিনের ঘর তৈরী করতে গেলে আব্দুস সাহিদ এসে বাধা দেন। এসময় মৃত হানিফার বড় মেয়ে খোদেজা ও তার স্বামী রমজান আলী বাধা দেয়ার জেরে সাহিদের উপর চড়াও হন। একপর্যায়ে সাহিদকে মারধর করার সময় তার ডাক চিৎকারে স্বজনেরা তাকে উদ্ধার করে মাওনা চৌরাস্তার হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবুল হাসান বিজ্ঞাপন চ্যানেলকে জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এঘটনায় নিহতের স্ত্রী নারগিস বেগম বাদী হয়ে ইমান আলী, খোদেজা, সাবিনা ও খোদেজার স্বামী রমজান আলীর নাম উল্লেখ করে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগে প্রেক্ষিতে খোদেজা ও সাবিনাকে আটক করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।