সারা দেশে নতুন ১ হাজার ভূমি অফিস হচ্ছে

স্টাফ রিপোর্টার : ভূমি সংক্রান্ত রেকর্ড সংরক্ষণ ও রক্ষণাবেক্ষণের সুবিধা বাড়ানো, আধুনিক এবং দক্ষ ভূমি প্রশাসনের মাধ্যমে জনসেবার মানোয়নের লক্ষ্যে সারা দেশের শহর ও ইউনিয়নে নতুন ১ হাজার ভূমি অফিস তৈরি করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় বিবেচনার জন্য প্রকল্পটি উত্থাপন করা হবে বলে পরিকল্পনা কমিশন সূত্রে জানা গেছে।

ভূমি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে প্রকল্পটিতে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৭শ ৩১ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। প্রকল্পটির বাস্তবায়নকারী সংস্থা ভূমি মন্ত্রণালয় ও স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর। প্রকল্পের মেয়াদ ধরা হয়েছে ২০১৬ সালের জুলাই মাস থেকে ২০১৯ সালের জুন মাস। প্রকল্পটির এলাকা ধরা হয়েছে সিটি কর্পোরেশন, পৌরসভা এবং ইউনিয়নে অবস্থিত ১ হাজার ভূমি অফিস।

প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, ভূমি মন্ত্রণালয়ের আওতায় ভূমি অফিস সমূহ জমির দলিল সংক্রান্ত তথ্য হালনাগাদ, ভূমির রেকর্ড সংরক্ষণ, খাজনা আদায়, খাস জমি ব্যবহার-পরিচালনা, ভূমি নীতিমালা বাস্তবায়নসহ ভূমি সংক্রান্ত সার্বিক কার্যক্রম পরিচালনার দায়িত্ব পালন করা এই ভূমি অফিস সমূহ বর্তমানে অত্যন্ত পুরাতন ও জরাজীর্ণ অবস্থায় আছে। তাই এসব ভূমি ব্যবস্থাপনার তথ্যাদি যথাযথভাবে সংরক্ষণ করার পাশাপাশি জনসাধারণ যেন সহজে সেবা পেতে পারে সেই লক্ষ্যে সারা দেশে শহর ও ইউনিয়নে ভূমি অফিস নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

পরিকল্পনা কমিশন সূত্রে জানা গেছে, প্রকল্পের প্রধান কার্যক্রমের মধ্যে আছে ১০ একর জমি অধিগ্রহণ। প্রতিটি এক হাজার ৩৫ বর্গফুট ১ম তলা ভূমি অফিস নির্মাণ (শহর ও ইউনিয়নে মোট ১০০ টি)। প্রতিটি এক হাজার ৩৫ বর্গফুট ৩য় তলা ফাউন্ডেশনসহ ২য় (নীচ তলা খালি) ভূমি অফিস নির্মাণ (উপকূল এবং হাওর এলাকায় মোট ১০০ টি)।

ভূমি উন্নয়নসহ, প্রবেশদ্বার, অভ্যন্তরীণ রাস্তা, ড্রেনেজ এবং সীমানা প্রাচীর নির্মাণ (মোট ১০০০ টি)। এর মধ্যে আরো আছে ৩২টি যানবাহন ক্রয় (৩টি জিপ, ৫টি ডাবল কেবিন পিক আপ, ২৪টি মটরসাইকেল)। এয়ারকুলার, ফটোকপি, কম্পিউটার, আসবাপত্র ও অন্যান্য অফিস সরঞ্জাময়াদি ক্রয় করা হবে প্রকল্পটির বাস্তবায়নের জন্য।