৬৩ লাখের বেশি মানুষ বিষণ্নতায় ভুগছে

চ্যানেল ডেস্ক : বাংলাদেশে মোট জনসংখ্যার ৪ দশমিক ১ শতাংশ বিষণ্নতায় ভুগছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এছাড়া উদ্বেগসংক্রান্ত সমস্যায় ভুগছে মোট জনসংখ্যার ৪ দশমিক ৪ শতাংশ।

‘ডিপ্রেশন অ্যান্ড আদার কমন মেন্টাল ডিসঅর্ডার্স : গ্লোবাল হেলথ এস্টিমেট’ শীর্ষক এক প্রতিবেদন এ তথ্য দিয়েছে সংস্থাটি।

এতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে মোট ৬৩ লাখ ৯১ হাজার ৭৬০ জন বিষণ্নতায় ভুগছেন। এছাড়া ৬৯ লাখ ২১২ জন ভুগছেন উদ্বেগ সংক্রান্ত সমস্যায়।

বিশ্ব ব্যাংক বলছে, গোটা বিশ্বে যত মানুষের বাস ২০১৫ সালে তার ৪ শতাংশেরও বেশি মানুষ বিষণ্নতায় ভুগেছে। গত ১০ বছরে এ হার ১৮ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

মানসিক ও শারিরীক প্রতিবন্ধকার জন্য বিষণ্নতাকেই সবচেয়ে বড় কারণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। একই সমস্যার জন্য উদ্বেগকে চিহ্নিত করা হয়েছে ষষ্ঠ কারণ হিসেবে।

বাংলাদেশের প্রতিবেশি দেশগুলোর মধ্যে ভুটানে বিষণ্নতায় ও উদ্বেগসংক্রান্ত সমস্যায় ভুগছে যথাক্রমে ৪ দশমিক ২ ও ৩ দশমিক ৭ শতাংশ মানুষ, ভারতে ৪ দশমিক ৫ ও ৩ শতাংশ মানুষ, মিয়ানমারে ৩ দশমিক ৭ ও ৩ দশমিক ৩ শতাংশ মানুষ, শ্রীলঙ্কায় ৪ দশমিক ১ ও ৩ দশমিক ৪ শতাংশ মানুষ।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তাদের প্রতিবেদনে বলছে, ২০১৫ সালে সারা বিশ্বে ৭ লাখ ৮৮ হাজার মানুষ আত্মহত্যা করেছেন। এর চেয়ে অনেক বেশি সংখ্যক মানুষ আত্মহত্যার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছেন।

১৫ থেকে ২৯ বছর বয়সীদের মৃত্যুর জন্য আত্মহত্যায় দ্বিতীয় কারণ।