আজ বৃহস্পতিবার | ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ || ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ || সময় ০৪:৩৯ পূর্বাহ্ন
photo

কাপাসিয়ায় বেওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রব বেড়েছে

     সোমবার, ২৭ আগস্ট, ২০১৮

Photo
কুকুরের উপদ্রব

কাপাসিয়া(গাজীপুর) থেকে শামসুল হুদা লিটনঃ কাপাসিয়া উপজেলা শহর, হাটবাজার, বিভিন্ন ইউনিয়নের গ্রামের রাস্তা-ঘাট, পাড়া-মহল্লায় দিন দিন বেওয়ারিশ কুকুরের উৎপাত, উপদ্রব বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতে পথচারী, স্কুলগামী ছেলে-মেয়ে সাধারণ পথিক ভয়ে আতঙ্কগ্রস্ত।

রাস্তা-ঘাট,অলিগলি থাকে বেওয়ারিশ কুকুরের দখলে। সব কুকুর নিয়ন্ত্রণের যেন কোন উদ্যোগ নেই।


সরেজমিনে পরিদর্শন করে দেখা যায়, ভয়ংকর চেহারার কুকুরগুলো দলবেঁধে সকাল হতে না হতেই রাস্তায় দৌড়াদৌড়ি ডাকাডাকি শুরু করে। দিনের বেলায় যত্রতত্র ঘুরে বেড়াচ্ছে এসব কুকুর। রাত বাড়ার সাথে সাথে বেওয়ারিশ কুকুরের সংখ্যাও বেড়ে যায়। রাতে ঘেউ- ঘেউ শব্দে এলাকা মাতিয়ে তুলে। রাত কিংবা দিনে পথচারীদের পথ আগলে রাখে বেওয়ারিশ কুকুরেরা। ওরা আবার দল বেধে চলে। অসহায় পথিক ভয়ে চীৎকার করে কামড় থেকে বাঁচার চেষ্টা করে।প্রায় প্রতি মাসেই এই বেওয়ারিশ কুকুর দু'একজন লোককে কামরায়। ফলে জনগণ কাপাসিয়া উপজেলা শহর সহ বিভিন্ন রাস্তা দিয়ে হাটতে ভয় পাচ্ছে।

কুকুরগুলো পাগলা না নিরীহ সেটা কেউ জানে না। পাগলা কুকুর কামড়ালে জলাতঙ্ক রোগ হয়। জলাতঙ্ক রোগ থেকে বাঁচার জন্য ভ্যাকসিন নিতে হয়। নাভির চারিদিকে নিতে হয় ১৪ টি ইনজেকশন। অবশ্য বর্তমানে ১৪ ইনজেকশন নিতে হয় না। ভ্যাকশিনের দামও অনেক। মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্যে বেওয়ারিশ কুকুর নিয়ন্ত্রণ করা প্রয়োজন




photo
বিশেষ বিজ্ঞাপন